কলাপাড়ার ধানখালীতে পলাশ বাহিনীর নৃশংশতা,নির্মমভাবে কুপিয়ে রগ কেটে শ্রমিকের

0
547

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ

ডান পায়ের হাটুর রগসহ বাটি কেটে ফেলার পরও নির্মমভাবে কুপিয়ে জখম করেছে আঃ জলিল হাওলাদার (৪৭) এক শ্রমিকে। পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ধানখালী লোন্দা গ্রামে শনিবার সকালে সন্ত্রাসী পলাশ
মোড়ল ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী এ নৃশংস তান্ডব চালায়।

আশংকাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা আহত জলিলকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। কিন্তু প্রচন্ড রক্তক্ষরণে তার অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল শের-ই- বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ধানখালী ১৩২০ মেঘাওয়াট বিদ্যুত কেন্দ্রের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এনডিই’র নাইট গার্ড আঃ জলিল বাসা থেকে বের হওয়ার পর আগে থেকে ওৎপেতে থাকা সশস্ত্র সন্ত্রাসী পলাশ ও তার সহযোগীরা তাকে ধাওয়া করে। তার ডান পায়ে রামদা দিয়ে কোপ দিয়ে জখম করার পর সে দৌড় দিলে তাকে প্রায় দুইশ গজ ধাওয়া করে মাটিতে ফেলে আবার এলোপাতাড়ি কোপায়। এ সময় গোটা এলাকার মানুষের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে এ নৃশংশ দৃশ্য দেখে।

জলিলকে মৃত ভেবে সন্ত্রাসীরা বীরদর্পে এলাকা ছাড়লে স্থানীয়রা তাকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।
আহতের ছেলে মো.রাসেল হাওলাদার জানান, এর আগেও তার বাবাকে পলাশ মোড়ল মারধর করেছে। ওই ঘটনায় মামলা করায় আবার তাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়।

কলাপাড়া হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা.জেএইচ খান লেলীন জানান, জলিল হাওলাদারের ডান পায়ের রগ ও বাটি কেটে যাওয়ায় প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হয়। তার শরীরে ছয়টি কোপের চিহ্ন রয়েছে। তাই তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশালে রেফার করা হয়েছে।

কলাপাড়া থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ পলাশ ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here