ঢাকার ধামরাইয়ে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ, আটক ৫

0
373

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ঢাকার ধামরাইয়ে চলন্ত বাসে এক পোশাক শ্রমিককে রাতভর গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত খাকার অভিযোগে পুলিশ  বাসচালকসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

সোমবার সকালে গ্রেপ্তারকৃতদের ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। তারা হলেন- ধামরাইয়ের কুল্লা গ্রামের রাজা মাতাব্বরের ছেলে মকবুল হোসেন (৩৮), গাওয়াইল গ্রামের কালু মিয়ার ছেলে মো. মোহেল রানা (২২), চরপাড়া গ্রামের হানিফের ছেলে সুজন আহাম্মেদ (১৭), নীলফামারী জেলার ডিমলা গ্রামের মহনলাল দাসের ছেলে বলরাম দাস (২০) ও ছলেমানের ছেলে আ. আজিজ (১৭)।

ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মলয় সাহা জানান, কারখানায় কাজ শেষে ধামরাইয়ের ইসলামপুর থেকে গতরাতে ‘যাত্রীসেবা’ নামের একটি লোকাল বাসে ওঠেন ওই পোশাক শ্রমিক। বাসটি ধামরাইয়ের কালামপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে ৫ জন যাত্রী ব্যাতীত সবাই নেমে যায়। এরপর বাসের হেলপার বাসের দরজা বন্ধ করে দেয় এবং চালক বাসটি মহাসড়কে উদ্দেশ্যবিহীন ভাবে চালাতে শুরু করে। এসময় চালকসহ ৫ জনের দ্বারা ধর্ষণের শিকার হন ওই নারী। এসময় ওই নারীর ডাক ও চিৎকারে একটি পেট্রোল পাম্পের কর্মীরা বিষয়টি বুঝতে পেরে ধামরাই থানা পুলিশকে খবর দেন।

সংবাদ পাওয়ার পর পুলিশের চারটি পৃথক দল বাসটি ধাওয়া করে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের কচমচ এলাকা থেকে আটক করে।

আটকদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর রিমান্ড আবেদন করে দুপুরে আদালতে পাঠানো করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here