দেবী বানানোর অনুমতি কে দিয়েছেঃ শীলা আহমেদ

0
2182
শীলা আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের জনপ্রিয় উপন্যাস ‘দেবী’। সরকারী অনুদানে হুমায়ূন আহমেদের এই কালজয়ী উপন্যাস নিয়ে নির্মিত হচ্ছে চলচ্চিত্র দেবী।

বেশকদিন ধরেই খবরের কাগজে ‘দেবী’ নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে,খবরের কাগজে দেবী চলচ্চিত্রটির মুক্তির বিষয়ে খবর ছাপা হলে নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের মেয়ে শীলা আহমেদ তার নিজের ফেইসবুক আইডিতে ‘দেবী’ নিয়ে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেছেন ।

পাঠকদের সুবিধার্তে শীলা আহমেদের ফেইসবুক পস্টটি তুলে ধরা হল।

দেবী

খবরের কাগজে দেখলাম ‘দেবী’ ইন্ডিয়া তে আগে মুক্তি পাচ্ছে ! ইন্ডিয়া অথবা বাংলাদেশ, আগে অথবা পরে কোন কিছুতেই আমার অবশ্য কিছু যায় আসে না। আমার জানতে ইচ্ছা করছে, কে দেবী বানানোর অনুমতি দিয়েছে? আমরা চার ভাইবোন দেইনি । আমাদের চার ভাইবোনের অনুমতি ছাড়া কিভাবে এই সিনেমা সরকারি অনুদান পেল? কিভাবে এটা বানানো হয়ে গেল? কিভাবে এটা মুক্তি পাচ্ছে?
খুব দুঃখজনক হলেও এটা সত্যি যে হুমায়ূন আহমেদ এর মৃত্যুর পর তার সব কিছুর উত্তরাধিকার তার স্ত্রী আর ছেলেমেয়েরা। সমাজের বিশিষ্ট মানুষদের খুব খারাপ লাগলেও কিছু করার নেই যে আমরা চার ভাইবোনও, হুমায়ূন আহমেদ এর ছেলেমেয়ে ! আমরা TV তে যেয়ে হুমায়ূন আহমেদ- হুমায়ূন আহমেদ করছিনা, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যেয়ে হুমায়ূন আহমেদ-কে নিয়ে বক্তব্য দিচ্ছি না, হুমায়ূন আহমেদ এর জন্ম বার্ষিকী/ মৃত্যু বার্ষিকী তে ফুল দিচ্ছি না দেখে ভাবার কোন কারন নেই যে আমাদের আইনগত কোন অধিকার নেই!
আমাদের ১০০% আইনগত অধিকার আছে বাবার কোন লেখা সিনেমা/ নাটক/ অনুবাদ হবে কিনা এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেয়ার। এবং ‘সমাজের বিশিষ্ট মানুষরা’- আপনারা যদি হুমায়ূন আহমেদ এর লেখা নিয়ে নাটক সিনেমা বানান, আপনাদেরও ১০০% দায়িত্ব আছে হুমায়ূন আহমেদের প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক উত্তরাধিকার এর অনুমতি নেয়া ।
যদি মনে হয় ‘বিশিষ্ট ব্যক্তি’ বলে এত ঝামেলা করতে পারবেন না, নাম না জানা প্রাপ্তবয়স্ক উত্তরাধিকারদের দ্বারে দ্বারে যাওয়া আপনাদের পক্ষে সম্ভব না, তাহলে এক বিয়ে করা কোন লেখকের গল্প উপন্যাস থেকে নাটক সিনেমা বানান! সেইরকম খুজে পাওয়া তো খুব কঠিন কিছু না ভাই!

শীলা আহমেদের ফেসবুক থেকে সংগ্রহীত।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here