প্রতারক চক্রের খপ্পরে শিক্ষক, নাইজেরিয়ান আটক

0
360

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

প্রতারক চক্রের খপ্পরে পরেছেন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ফারুক। প্রতারকচক্র অধ্যাপকের কাছ থেকে প্রায় ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।এই ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ডোনাটস এমেকা ওনিজিউয়া নামে এক নাইজেরিয়ানকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ এটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্রে একটি সেমিনারে অংশ নেওয়ার জন্য শাবি অধ্যাপক ড. ফারুক মিয়ার কাছে গত ফেব্রুয়ারি মাসে একটি ই-মেইল আসে। ওই সেমিনারে অংশ নিতে আগ্রহ প্রকাশ করলে তার কাছ থেকে হোটেল ভাড়া, বিমান টিকিট, ইন্সুরেন্স ও ফেরতযোগ্য জামানত হিসেবে ৩ দফায় ৫ হাজার ৬০০ ডলার হাতিয়ে নেয় চক্রটি।

পরিতোষ ঘোষ বলেন, গত ২৭ মার্চ ওই চক্রের এক সদস্য ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দরের পাশে তাকে একটি ট্রাভেল ব্যাগ দিয়ে তা সিলেটে নিয়ে যেতে বলেন। এসময় ল্যান্ডিং চার্জ বাবদ আরও দেড়লাখ টাকা নেয় তারা।কিন্তু ব্যাগে কনফারেন্সের কোনো ডকুমেন্ট ছিল না। পরে ড. ফারুক এ বিষয়ে জানতে চাইলে তাকে ব্যাগ নিয়ে সিলেট চলে আসতে বলে। তারা বলে তাদের একজন লোক এসে ব্যাগের ভেতরের মেশিন থেকে সব ডকুমেন্ট বের করে দেবে।

পরদিন ওই চক্রের এক সদস্য নাইজেরিয়ান নাগরিক ডোনাটস এমেকা ওনিজিউয়া সিলেটে এসে ড. ফারুককে কল দেন। তারা নগরীর উপশহরের হোটেল রোজভিউর সামনে একটি মাইক্রোবাসে সাক্ষাৎ করেন। তখন ডোনাটস এমেকা মেশিন থেকে জাল ডলার তৈরি করে ড. ফারুকের হাতে দেয়। এতে ড. ফারুক ক্ষুব্দ প্রতারক চক্রের ওই সদস্যকে সেমিনারের ডকুমেন্ট দিতে বলেন। তখন ডোনাটস এমেকা কিছুক্ষণ পর ডকুমেন্ট নিয়ে আসছে বলে পালিয়ে যায়।

পরে ড. ফারুক এ ঘটনাটি পুলিশকে জানিয়ে বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) শাহপরান থানায় একটি মামলা করেন। মামলার পর ওইদিন সকালেই মাধবপুরে একটি হোটেলে অভিযান চালিয়ে নাইজেরিয়ান নাগরিক ডোনাটস এমেকাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পরে শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ বলেন, এরা একটি আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের সদস্য। দেশের ও দেশের বাইরের অনেক প্রতারক এই চক্রের সাথে জড়িত।

তিনি আরোও জানান, আমাদের দেশে আর কারা জড়িত আছে তা খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here