বাংলাদেশ এখন সম্প্রীতির দেশ: তারানা হালিম

0
316
অনুষ্ঠানে তারানা হালিম

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন সম্প্রীতির দেশ মন্তব্য করে তথ্য প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট তারানা হালিম বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় কিছু সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। আর এসবই হয়েছে রাজনৈতিক স্বার্থে। কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখনকার বাংলাদেশ সম্প্রীতির দেশ হয়েছে।

শনিবার কলকাতার হো চি মিন সরণির আইসিসিআরের সত্যজিৎ রায় মিলনায়তনে ‘সম্প্রীতির বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তারানা হালিম বলেন, বাংলাদেশ ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। হিন্দু তার ধর্ম মেনে চলবে, মুসলিম ইসলাম ধর্ম মেনে চলবে। বৌদ্ধরা মানবে তাদের বৌদ্ধ ধর্ম। এটাই বাংলাদেশের সংস্কৃতি। এ দেশে সব ধর্মের মানুষ সমান সুযোগ পেয়ে থাকেন।

আলোচনা সভায় পশ্চিমবঙ্গের বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, কোনো ধর্মই অস্থিরতা সৃষ্টি করতে শেখায় না। সব ধর্ম মানুষকে রক্ষা করতে শেখায়। সম্প্রীতিটা হচ্ছে আমাদের সংস্কৃতির একটা দিক। ১০০ জনের মধ্যে ৯৯ জনই শান্তি চায়, সম্প্রীতি চায়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের আলাদা একটা অনুভূতি আছে। বাংলাদেশ না থাকলে বাংলা আন্তর্জাতিক ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি পেত না। আমার কাছে বাংলাদেশ আর পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। দুটিই বাংলা, দুটিই একটা দেশ।

আলিয়া ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক সাইদুর রহমানের পবিত্র কোরআন তেলাওয়ায়, রত্না মিত্রের উপনিষদ পাঠসহ ত্রিপিটক ও বাইবেল পাঠের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। পরে সমাপনী ভাষণ দেন বাংলাদেশের উপ-রাষ্ট্রদূত তৌফিক হাসান। এ সময় বাংলাদেশ এক প্রকৃষ্ট সম্প্রীতির দেশ হিসেবে উল্লেখ করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here