শিশুর জীবনমান ও অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কর্মশালা অনুষ্ঠিত

0
231
কর্মশালায় বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ।

স্টাফ রিপোর্টার

দীর্ঘদিন যাবত দেশের সকল শিশুর জীবনমান ও অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষে সমন্বিত কর্মসূচী পরিচালনা করছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ও জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ)। মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ ও ইউনিসেফ যৌথভাবে লোকাল গভর্নেন্স ফর চিলড্রেন (এলজিসি) নামে একটি কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। যে কর্মসূচীটি হবিগঞ্জ জেলায় বাস্তবায়িত হচ্ছে।

এজন্য গতকাল মঙ্গলবার সকালে ‘জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসকের তিন বছরের অগ্রাধিকার কর্মপরিকল্পনা বিষয়ক কর্মশালা’ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ।

কর্মশালায় জেলা প্রশাসকের তিন বছরের অগ্রাধিকার কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন করা হয়। বিশেষ করে সেক্টরভিত্তিক
লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের অবস্থা জানার চেষ্টা এবং লক্ষ্য অর্জনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার মান বৃদ্ধির লক্ষে শিশুদের উপস্থিতি বাড়ানো, শ্রেণিকক্ষে মাল্টিমিডিয়ার ব্যবহার, ই-হাজিরার মত পদক্ষেপ গ্রহণ, বিশেষ করে উপজেলাগুলোতে স্ব স্ব সেক্টরের জয়েন্ট মনিটরিং জোরদার এবং এলজিসি মনিটরিংয়ের ক্ষেত্রে সহযোগিতা করা, নারী ও শিশুকেন্দ্রিক প্রকল্প গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন, রূপকল্প-২১ বাস্তবায়নে স্ব স্ব বিভাগীয় প্রধানরা আরো কার্যকরি
উদ্যোগ গ্রহণ ও এই প্রকল্প বাস্তবায়নে সহযোগিতা করা।

এসময় বানিয়াচং ও চুনারুঘাটে বিদ্যুৎবিহীন ৩৮টি কমিউনিটি সেন্টারে বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য জেলা প্রশাসক ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক নূরুল ইসলামের পরিচালনায় কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) অমিতাভ পরাগ তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ শোভন বসাক, ইউনিসেফের সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি উম্মে কুলসুম ও ফাহিম চৌধুরী এবং সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here