সাংহাইতে ২১ তলা হোটেলের ১৯ তলাই মাটির নীচে!

0
419

ইনফোবাংলা ২৪ ডেস্কঃ

মেশিনের শব্দ আর কালো ধোঁয়ায় এতদিন কান পাতা দায় ছিল এই অঞ্চলে। আনাগোনা ছিল শুধু মাত্র শ্রমিকদের। আশেপাশে বসবাসও ছিল নামমাত্র। চিনের সাংহাই শহরের কাছে সংজিয়াং জেলার খনি অঞ্চলের এই চেনা ছবিটাই আর কিছু দিনের মধ্যে সম্পূর্ণ পাল্টাতে চলেছে।

কারণ রুক্ষ এই খনি অঞ্চলই আর কিছু দিনের মধ্যে বদলে যেতে চলেছে ঝাঁ চকচকে হোটেলে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০১৮-র মে মাস থেকেই চালু হয়ে যাবে এই হোটেল। বিলাসবহুল এই অভিনব হোটেলে ছুটি কাটাতে পারবেন পর্যটকেরা। এর কাছ শুরু হয়েছিল ২০১৩ সালের নভেম্বরে।

এই হোটেলের বৈশিষ্ট্য জানলে অবাক হবেন। এই হোটেলের পুরোটাই মাটির নীচে। ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ১০০ মিটার গভীর খনির ৮০ মিটার নীচে পর্যন্ত ছড়িয়ে রয়েছে হোটেলটি। হোটেলের বেশ কিছুটা অংশ রয়েছে জলের নীচেও। আর এটাই এই হোটেলের প্রধান আকর্ষণ। ব্রিটিশ সংস্থা আটকিনস্ এই হোটেলের নকশা বানিয়েছে।

এই হোটেলের নামেই অবশ্য তার কিছুটা আভাস মেলে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘ডিপ পিট হোটেল’। ২১ তলা হোটেলের ১৭টি ফ্লোর মাটির নীচে, দু’টি ফ্লোর জলের তলায় এবং দু’টি ফ্লোর মাটির উপরে।

সব মিলিয়ে পর্যটকদের জন্য মোট ৩৮৩টি রুম রয়েছে। হোটেলের মাঝখানে কাচের তৈরি কৃত্রিম জলপ্রপাত রয়েছে। হোটেলের নীচে দাঁড়িয়ে উপরে তাকালে মনে হবে, ঠিক যেন পাহাড়ের গা বেয়ে ৮০ ফুট নীচে গভীর খাদে নেমে আসছে জলপ্রপাতটি।

হঠাৎ খনিকে বিলাসবহুল হোটেলে পরিণত করা হল কেন? আগে পুরোমাত্রায় সচল থাকলেও বিগত কয়েক বছর ধরে পরিত্যক্তই ছিল খনি এলাকাটি। সে কারণেই এই সিদ্ধান্ত চিনের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here