সালমানের জামিনের রায় কাল, জেলে দেখা করতে গেলেন প্রীতি

0
586

ইনফোবাংলা ২৪ ডেস্কঃ

আরও একটা রাত জেলেই কাটাতে হচ্ছে বলিউডের ভাইজানকে। জোধপুর সেশনস কোর্টে শুক্রবার  তাঁর জামিনের আবেদনটি উঠেছিল ঠিকই। কিন্তু ফয়সালা হয়নি। সেশনস কোর্টের বিচারপতি জানিয়েছেন, শনিবার সালমান খানের জামিনের আবেদনটি নিয়ে রায় জানানো হবে।

আতএব আজও সেই জোধপুর সেন্ট্রাল জেল। ২ নম্বর ব্যারাকের ২ নম্বর সেল। মুরগি-মটন ছাড়া যাঁর মুখে খাবার রোচে না, সেই সলমন খানকে আরও একটা দিন খেতে হবে জেলের সেই বাঁধা গতের খাবার। তবে সলমনের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আজ জোধপুর সেন্ট্রাল জেলে ছুটে গিয়েছেন প্রীতি জিন্টা। বলিউডের ভাইজানের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব দীর্ঘ দিনের। তবে সলমনের সঙ্গে প্রীতিকে দেখা করতে দেওয়া হয়েছে কিনা, তা এখনও জানা যায়নি।

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় বলিউডের চার তারকা, সইফ আলি খান, তব্বু, সোনালি বেন্দ্রে এবং নীলম কোঠারি রেহাই পেয়ে গেছেন প্রমাণের অভাবে। ব্যতিক্রম সালমান খান। গতকাল তাঁকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়ার পরেই জোধপুর সেশনস কোর্টে  জামিনের জন্য আবেদন করেছিলেন সালমানের আইনজীবীরা।

আজ সকালে জোধপুর সেশনস কোর্ট চত্বরে ভিড় উপচে পড়ার অবস্থা। ছিল বাড়তি নিরাপত্তাও। ৫১ পাতার জামিনের আবেদনে সালমানের তরফ থেকে তাঁর আইনজীবী হস্তিমল সারস্বত বলেন, এই মামলা সাজানোর জন্য সরকারি কৌঁসুলি ভুয়ো সাক্ষী দাঁড় করিয়েছেন। সলমনের জামিনের দাবি জানিয়ে তিনি সব মিলিয়ে মোট ৫৪ টি কারণ তুলে ধরেন। কিন্তু আদালত জানায়, বিষয়টি নিষ্পত্তি করা হবে আগামিকাল।

জেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ফিল্মস্টার হলেও সলমনকে বাড়তি কোনও সুবিধা দেওয়া হবে না। তাঁকে থাকতে হবে সাধারণ অপরাধীর মতোই। ধর্ষণে অভিযুক্ত ধর্মগুরু আসারাম বাপুর সঙ্গে জোধপুর সেন্ট্রাল জেলের একই ওয়ার্ডে রয়েছেন সলমন। গতকাল রাতে তাঁকে খেতে দেওয়া হয়েছিল মোটা রুটি, ডাল এবং তরকারি। আজ সকালে দেওয়া হয় খিচুড়ি। কিন্তু বিলাসী জীবনে অভ্যস্ত ‘ভাইজান’ কিছুই মুখে তুলতে চাইছেন না। অন্যদিকে মহেশ বোরা নামের এক আইনজীবীর দাবি করেছেন, সলমনের হয়ে মামলা লড়ায় তাঁকে গতকাল রাতে দুবাই এবং অস্ট্রেলিয়া থেকে ফোন করে হুমকি দেওয়া হয়েছে। সলমনের জামিনের আবেদনটি কাল সকাল সাড়ে দশটায় ফের উঠবে জোধপুর সেশনস কোর্টে। সেশনস কোর্টে জামিনের আর্জি খারিজ হয়ে গেলে, সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে রাজস্থান হাইকোর্টে যাওয়ার প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছেন সলমনের আইনজীবীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here